মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ০৯:৪৬ অপরাহ্ন

মুন্সীগঞ্জে ভুয়া ডিবি পুলিশের পরিচয় দিয়ে ফেসে গেলো দুই বন্ধু-বান্ধবী

Reporter Name / ৯ Time View
Update : মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ০৯:৪৬ অপরাহ্ন

মোঃ সুমন হোসেন, মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রতিনিধিঃ

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলায় ভুয়া ডিবি পুলিশ পরিচয় দিয়ে টাকা হাতিয়ে নেয়ার সময় দুই বন্ধু-বান্ধবীকে আটক করেছে সিরাজদিখান থানা পুলিশ।

গতকাল বুধবার রাত আটটার দিকে উপজেলার ইছাপুরা ইউনিয়নের বটতলা এলাকা থেকে পারভেজ নামে এক যুবক ও নোভা নামে এক নারীকে আটক করে পুলিশ।সম্পর্কে তারা বন্ধু-বান্ধবী। পরে আজ বৃহস্পতিবার তাদেরকে মুন্সীগঞ্জ আদালতে প্রেরণ করা হয়।

আটককৃত পারভেজ(২২) মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার পারুলপাড়া দেওভোগ গ্রামের মো: আবেদ মোল্লার ছেলে ও নোভা আক্তার (২২) একই উপজেলার রনছ হাওলাপাড়া গ্রামের মো:সালাউদ্দিন বেপারীর মেয়ে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ইছাপুরা ইউনিয়নের ফারুক মিয়ার সাথে একই এলাকার খাদিজা বেগমের বিভিন্ন বিষয়াদি নিয়ে বিরোধ চলছিলো। ৮-১০ দিন পূর্বে খাদিজা বেগম বিরোধের বিষয়ে ফারুক মিয়ার বিরুদ্ধে মামলা করার জন্য মুন্সীগঞ্জ আদালতে যান।খাদিজা মুন্সীগঞ্জ আদালতের গেটের সামনে থাকা অবস্থায় পারভেজ ও নোভা তার কাছে এসে আদালতে আসার কারণ জিজ্ঞাসা করে। খাদিজা বিরোধের বিষয়ে বিস্তারিত বললে পারভেজ ও নোভা নিজেদেরকে ডিবি পুলিশ পরিচয় দেয় এবং তার থেকে ফারুক মিয়ার বিরুদ্ধে একটি দরখাস্ত ও ১হাজার টাকা নেয়। পরে তারা তদন্ত করবে বলে আরো ২ হাজার টাকা নেয়।

বুধবার (১৯ অক্টোবর) সন্ধ্যায় খাদিজা বেগমের বাসায় এসে ডিবি পুলিশের সদস্য পরিচয়দানকারী পারভেজ ও নোভা টাকা দাবি করলে তাদের গতিবিধি সন্দেহজনক হলে স্থানীয়দের পরামর্শে অ্যাডভোকেট সোহাগকে ফোন দেন ফারুক। এডভোকেট সোহাগ এসে তাদের সাথে কথা বললে সন্দেহ হলে থানা পুলিশকে ফোন দেন। পরে পুলিশ গিয়ে ভুয়া পরিচয় দেয়া দুইজনকে আটক করে সিরাজদিখান থানায় নিয়ে আসে।

সিরাজদিখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুজাহিদুল ইসলাম জানান, আটক দুইজনের বিরুদ্ধে অভিযোগের প্রমাণ পাওয়ায় তাদের বিরুদ্ধে নিয়মিত মামলার রুজু করে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।


এই ক্যাটাগরি আরও পড়ুন

তারিখ অনুসারে পুরাতন খবর

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২
১৩১৪১৫১৬১৭১৮১৯
২০২১২২২৩২৪২৫২৬
২৭২৮২৯৩০৩১  
এক ক্লিকে বিভাগের খবর